বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগ এর গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে বঙ্গবন্ধু জাতীয় স্টেডিয়ামে আজ মুখোমুখি হয় শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব ও সাইফ স্পোটিং ক্লাব। এতে সাইফ এসসিকে ২-১ গোলে পরাজিত করে শেখ জামাল ডিসি।

ম্যাচের শুরু থেকেই আক্রমণাত্মক খেলে দুই দল। খেলার ১৯ মিনিটে লিড নেওয়ার থেকে অল্পের জন্যে বঞ্চিত হয় শেখ জামাল ডিসি। ওতাবেকের বাঁকানো শট গোলবারের একদম পাশ দিয়ে চলে যায়। এর পাঁচ মিনিট মধ্যমাঠ থেকে সলেমোন কিংয়ের বাড়ানো লম্বা পাসে ওতাবেক বাঁ পাশ দিয়ে ভলি করেন। সেই ভলি মাথা দিয়ে ছোয়ে দেন গাম্বিয়ান ফরোয়ার্ড ওমর জোবে। কিন্তু সাইফ গোলকিপার শান্ত কুমার রায় দুর্দান্তভাবে লাফিয়ে বল সেইভ করে সাইফকে সেই যাত্রায় রক্ষা করেন।

ম্যাচের ৩৫ মিনিটে ঘটে দূর্ঘটনা। সাইফের ডি বক্সে হেড করতে গিয়ে গাম্বিয়ান ফরোয়ার্ড সোলাইমান সিল্লাহর মাথার সঙ্গে লেগে আঘাত পায় সাইফের সহ-অধিনায়ক রিয়াদুল হাসান রাফির। এতে মাঠে লুটিয়ে পড়েন তিনি। এম্বুলেন্সে করে রাফিকে হাসপাতালে নিয়ে যেতে হয়৷ তার বদলি হিসেবে মাঠে নামেন সবুজ হোসাইন। প্রথমার্ধের ইঞ্জুরি সময়ে লিড পায় শেখ জামাল।সোলাইমান সিল্লাহর বাড়ানো পাস থেকে ডান পায়ের শটে গোল করেন ওমর জোবে।

বিরতির পর ম্যাচের ৪৮ মিনিটে সাইফের অধিনায়ক জামাল ভূঁইয়া বক্সের বাইরে থেকে ডান পায়ের ভলি নেন, কিন্তু বল সাইড বারের পাশ দিয়ে মাঠের বাইরে চলে যায়। ৫৫ মিনিটে সমতায় ফিরে সাইফ এসসি। মিডফিল্ডার জন ওলকিকে আটকাতে গিয়ে পড়ে যান শেখ জামালের ডিফেন্ডার মনির। এতে বল তার হাতে লাগলে পেনাল্টির বাঁশি বাজান রেফারি বিটুরাজ বড়ুয়া। পেনাল্টি থেকে গোল করতে ভুল করেননি জন ওকোলি।

ম্যাচের ৭৬ মিনিটে আবারো ম্যাচে লিড নিয়ে নেয় শেখ জামাল। সাইফ স্পোটিংয়ের বক্সের বাইরে থেকে দুর্দান্ত এক ফ্রি কিকে গোল করেন ওতাবেক। দুবার গোলরক্ষককে বডি মুভমেন্টে বিচলিত করে দ্বিতীয় পোস্টে দিয়ে বল জড়ান তিনি। এতে করে ম্যাচে ২-১ গোলের ব্যবধানে জয় পায় শেখ জামাল।

এই জয়ে ১৬ ম্যাচে ৩৫ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের তৃতীয় স্থানেই রয়েছে শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাব। অন্যদিকে এক ম্যাচ বেশী খেলে ২৬ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের সপ্তম স্থান সাইফ স্পোটিং ক্লাব।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here