বাংলাদেশ জাতীয় মহিলা ফুটবল দলের খেলোয়াড় আঁখি খাতুন। বাংলাদেশ নারী দলের বয়স ভিত্তিক পর্যায় পার করে বর্তমানে খেলছেন জাতীয় দলের হয়ে। খেলোয়াড়ি জীবনে আলো ছড়ালেও পারিবারিক অর্থনৈতিক টানাপোড়েনে আবদ্ধ হয়ে আছে আঁখি খাতুন ও তার পরিবার। তাই দলের হয়ে এই সেন্টার ব্যাকের অসামান্য অবদানের জন্য তার মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সম্মতিক্রমে সিরাজগঞ্জে তার পরিবারকে জায়গা প্রদান করা হয়েছে।

এই প্রসঙ্গে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক মোঃ আবু নাইম সোহাগ বলেন, ‘আমাদের জাতীয় মহিলা ফুটবল দলের খেলোয়াড় আঁখি খাতুন। মহিলা ফুটবল দলের ক্ষেত্রে তার অবদানের জন্যে তার পরিবারের অবস্থা বিবেচনা করে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনাক্রমে সিরাজগঞ্জের শাহজাদপুরে জায়গা প্রদান করা হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, ‘এর আগে বছর তিনেক আগে একবার জায়গা প্রদান করা হয়েছিলো। কিন্তু সেই জায়গা নিয়ে দেখা দেয় বিভিন্ন জটিলতা। এরপর আঁখি এই বিষয়ে আমাদের বাফুফে ও মহিলা ফুটবল কমিটিকে অবগত করে। তার পরিবর্তিতে আঁখি খাতুনের পরিবারের জন্যে একটি একসেপ্টএবল লেন্ডের নিশ্চিতে জন্যে জেলা প্রসাশন অফিসের সাথে যোগাযোগ করি। বিভিন্ন চিঠি ও রেফারেন্স দিয়ে বিষয়টিকে আমরা এগিয়ে নিয়ে যাই। সেটার পরিপ্রেক্ষিতে আগামীকাল সিরাজগঞ্জ জেলা প্রশাসক কর্তৃক আঁখি পরিবারকে তার বাবার কাছে ৮ শতক জমি আনুষ্ঠানিকভাবে হস্তান্তর করা হবে। ’

জমি পাওয়াতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও বাফুফেকে ধন্যবাদ জনিয়েছে আঁখি খাতুন। সে বলে, ‘আমি প্রথমেই ধন্যবাদ জানাতে চাই মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে তিনি আমার আমাকে ও আমার পরিবারকে ভালো একটা পরিবেশে ঘর তৈরি করার ব্যবস্থা করে দিয়েছেন। এরপর আমি ফেডারেশনকে ধন্যবাদ জানাই,স্যাররা আমাকে এই বিষয়ে অনেক সাহায্য করেছেন। আমি ৫-৬ বছর পর জমিটা পাচ্ছি,তাই খুব আনন্দ লাগছে। আমাকে যে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জমিটা উপহার দিয়েছেন তা দেখে অন্য খেলোয়াড়রাও অনুপ্রাণিত হবে।’

এছাড়াও একই প্রসঙ্গে আঁখি খাতুনের বাবা বলেন, ‘আমি প্রথমত ধন্যবাদ জানাচ্ছি দেশনেত্রী শেখ হাসিনা। তিনি যদি বঙ্গমাতা টুর্ণামেন্ট আয়োজন না করতো তাহলে আঁখির মতো মানুষ আজকের এই জায়গায় আসতে পারতো না। উনি তার সুযোগ করে দিয়েছেন, এরপর জমি উপহার দিয়েছেন এইজন্যে আমার খুব আনন্দ লাগছে। আমি আশা করি উনি যে উপহার দিয়েছেন তার ফলে ভবিষ্যতে আরো অনেক মেয়ে,আরো অনেক খেলোয়াড় ফুটবলের আকর্ষণে বের হয়ে আসবে।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here