বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশীপ লীগের তের তম রাউন্ডের খেলায় জয় পেয়েছে ঢাকা ওয়ান্ডারার্স ক্লাব। ভিক্টোরিয়া  স্পোর্টিং ক্লাবকে ০-২ গোলের ব্যবধানে পরাজিত করেছে  তারা। অগ্রণী ব্যাংক ও কাওরান বাজারের ম্যাচ ৩-৩ গোলে ড্র।

ঢাকার বঙ্গবন্ধু  স্টেডিয়ামে দুই দলই ভালো প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছে। ম্যাচের ২ মিনিটে মিনহাজ  ওয়ান্ডারার্স কে  লিড এনে দেয়। বিরতির আগে আর কোন গোল না হলে ১-০ গোলের লিড নিয়ে বিরতিতে যায় ওয়ান্ডারার্স।

বিরতির পরে  ওয়ান্ডারার্সের বাদল ৭৫ মিনিটের সময় গোল করলে ২-০ গোলে এগিয়ে যায় তারা ।কোন দলই আর গোল করতে না পারলে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে ওয়ান্ডারার্স ।

এই জয়ে ১৩ খেলায় ২১ পয়েন্ট  ওয়ান্ডারার্সের।  অন্যদিকে সমান খেলায় ২ পয়েন্ট নিয়ে একেবারে তলানিতে  ভিক্টোরিয়া।

অপর দিকে কমলাপুর বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ মোস্তফা কামাল স্টেডিয়ামে মুখোমুখি হয়েছিলো অগ্রণী ব্যাংক ক্রীড়াচক্র ও কাওরান বাজার প্রগতি সংঘ। উত্তেজনায় ভরপুর ম্যাচটি  ৩-৩ সমতায় শেষ হয়।

ম্যাচের ২৪ মিনিটের সময় নাজমুলের গোলে লিড পায় অগ্রণী ব্যাংক।  এর মিনিট পাঁচেক পরে দলের লিড দ্বিগুন করেন আব্দুর। বিরতির ঠিক আগ মুহুর্তে ৪৪ মিনিটের সময় ইমন গোল করে ব্যাবধান কমান । ২-১ স্কোর নিয়ে বিরতিতে যায় দু দল।

বিরতির পরে ম্যাচের ৫৭ মিনিটে কাওরান বাজারের সাদ্দাম ও জাহিদকে সরাসরি লাল কার্ড দেখান রেফারি। এতে ৯ জনের দলে পরিনত হয় কাওরান বাজার। দুজন খেলয়াড় কম নিয়েও সমান তালে লড়াই চালিয়ে যায় কাওরান বাজার। ফলও আশে খুব দ্রুতোই ম্যাচের ৬৮ মিনিটে আফাজাল গোলকরে স্কোর ২-২ করে ফেলেন।

ম্যাচের ৭৬ মিনিটে নাজমুল আবারও গোল করলে ৩-২ গোলে এগিয়ে যায় অগ্রণী ব্যাংক। কিন্তু ম্যাচের  ৮২ মিনিটের সময় কাওরান বাজারের ত্রাতা হয়ে আসেন শামিম। দু দলের স্কোর হয়ে যায় ৩-৩ । বাকি সময় আর কোন গোল না হলে ড্র নিয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হয় দু দলকে।

এই জয়ে ১৩ খেলায় ১৮  পয়েন্ট  অগ্রণী ব্যাংকের।  অন্যদিকে সমান খেলায় ২৮ পয়েন্ট  কাওরান বাজারের ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here