ফেডারেশন কাপের দ্বিতীশ সেমিফাইনালে আজ মুখোমুখি হবে বসুন্ধরা কিংস ও ঢাকা আবাহনী। শক্তিমত্তা ও ফর্মে কিংস এগিয়ে থাকলেও ছাড় দিতে নারাজ এগারোবারের ফেড কাপ জয়ী আকাশী নীলরা।

২০১৮ সালে ফেডারেশন কাপের ফাইনালে সেই আলোচিত কান্ডের পর কিংস-আবাহনী লড়াই এখন বাংলাদেশ ফুটবলের সবচেয়ে বড় ম্যাচ হয়ে দাড়িয়েছে। সেইবার কিংসকে হারিয়ে শিরোপা জিতেছিলো আবাহনী, তবে এরপর থেকেই কিংসদেরই জয়জয়কার।

ফেডারেশন কাপে এবার যেন ফাইনালের আগেই হচ্ছে ফাইনাল। সকলের আগ্রহের কেন্দ্রে থাকা এই ম্যাচটিই টুর্নামেন্টের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচ হতে চলেছে। উত্তাপ ছড়াচ্ছে দুইদলের সমর্থকদের মধ্যেই। আবাহনীর কোচ মারিও লেমস বলেছেন, ‘বড় ম্যাচ, শক্তিশালী প্রতিপক্ষ। বড় চ্যালেঞ্জ অপেক্ষা করছে আমাদের জন্য। তবে মাঠেই প্রমান করবো কে সেরা। বসুন্ধরার সাথে সাম্প্রতিক লড়াই দারুন উপভোগ্য। এটা এই দেশের ফুটবলের জন্য ভালো।’

অন্যদিকে নিজের দলকে এগিয়ে রাখছেন কিংস কোচ অস্কার ব্রুজন, ‘নিশ্চয় দারুন একটা ম্যাচ হবে। তবে গ্রুপপর্ব ও কোয়ার্টার ফাইনালে শক্তিশালী প্রতিপক্ষদের হারিয়ে আসায় আমরা এগিয়ে থাকবো।’

মুখোমুখি লড়াইয়ে এগিয়ে কিংস। তিনবারের দেখায় দুবারই জয় তাদের। আবাহনী জিতেছে একবার। তবে ফেডারেশন কাপে একবারের দেখায় ঐ ২০১৮ সালের ফাইনালে জিতেছিলো আবাহনী। সেই জয়কেই অনুপ্রেরণা হিসেবে নিচ্ছে তারা।

আজকের ম্যাচের মূল পার্থক্য গড়ে দিবে বিদেশীরাই। আবাহনীর ডিফেন্ডার মাসিই সাইঘানি ভালো ডিফেন্স করার পাশাপাশি গোলও করছেন। মধ্যমাঠে গত ম্যাচেই এসে যুক্ত হয়েছেন সাবেক ব্রাজিল অনুর্ধ্ব ২০ দলের রাফায়েল আগুস্ট। শেষ ম্যাচে গোল পেয়েছেন আরেক ব্রাজিলিয়ান ফ্রান্সিসকো তোরেস। অন্যদিকে কিংসে চার বিদেশীই আছেন দূর্দান্ত ফর্মে। গোল করছেন রাউল ব্যাসেরা ও রবসন রবিনহো। মধ্যমাঠ থেকে বার বার বল জোগান দিচ্ছেন জনাথন ফার্নান্দেজ। এছাড়া ডিফেন্সকে আগলে রেখে এখনও দলকে একবার গোল হজম করতে দেনি ইরানি খেলোয়াড় খালিদ শাফি। যে দলের বিদেশী ম্যাচে নিজেদের কাজ সঠিকভাবে করতে পারবে, আজ বিজয়ের মুকুট তাদের মাথায়ই উঠবে এটা সহজেই বলা যায়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here