অবশেষে চলমান বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে হারের স্বাদ পেল বসুন্ধরা কিংস। টানা সতের ম্যাচ অপরাজিত থাকার পর চিনেদু ম্যাথিউর জোড়া গোলে কিংসকে ২-১ ব্যবধানে পরাজিত করেছে বন্দর নগরীর দল চট্টগ্রাম আবাহনী।

দলের নিয়মিত অধিনায়ক দিদিয়ের ও ডিফেন্ডার শুকুর আলীকে ছাড়া আজ মাত্র দুই বিদেশীকে নিয়ে পূর্ণ শক্তির কিংসের বিরুদ্ধে মাঠে নামে চট্টগ্রাম আবাহনী। তাই শুরুতে মাঠে দাপটই দেখায় কিংস। খেলার এক মিনিট পার হওয়ার পরই চট্টগ্রাম আবাহনীর ডিফেন্ডারের ভুলে সহজ সুযোগ পেয়ে যায় কিংসের ইব্রাহিম। তবে তার জোড়ালো শট ঠেকিয়ে দেন গোলরক্ষক নাঈম। এরপর রবসনকেও একবার রুখেন এই গোলরক্ষক।

ম্যাচের ২০ মিনিট পর্যন্ত আধিপত্য ধরে রাখা কিংসের উপর তার পরই আক্রমণ শুরু করে চট্টলার দলটি। একের পর এক আক্রমনে খেলার ৩৯ মিনিটে এগিয়ে যায় চট্টগ্রাম আবাহনী। নাসিরুলের বাড়ানো বল থেকে জিকোকে পরাস্ত করে লিড এনে দেন নাইজেরিয়ান ফরোয়ার্ড চিনেদু ম্যাথিউ। ১-০ গোলে এগিয় থেকেই বিরতিতে যায় মারুফুল হকের শিষ্যরা।

বিরতির পরপরই সমতায় ফেরার সুযোগ পায় কিংস। বল নিয়ে বক্সের ভিতর চলে আসা ইব্রাহীমকে ফেলে দেন চট্টগ্রাম আবাহনী গোলরক্ষক নাঈম। এতেই পেনাল্টির বাঁশি বাজান রেফারি। তবে ভাগ্য সহায় হয়নি। স্পট কিক থেকে বল জালে জড়াতে ব্যর্থ হন রাউল ব্যাসেরা।

রক্ষণাত্মক খেলতে থাকা চট্টগ্রাম আবাহনীকে আক্রমন চালাতে থাকা কিংস সমতায় ফেরে ম্যাচে ৮৭ মিনিটে। ডি বক্সের বাইরে দুজন ডিফেন্ডারকে বোকা বানিয়ে জোড়ালো শটে গোল করেন রবসন রবিনহো। তবে স্বস্তির নিশ্বাস ফেলার আগেই আবারো কিংসকে গোলের তিক্ত স্বাদ দেয় চট্টগ্রাম আবাহনী। প্রায় চারজন ডিফেন্ডারকে কাটিয়ে বল জালে জড়ান চিনেদু ম্যাথিউ। এতে ২-১ ব্যবধানে জয় নিয়েই মাঠ ছাড়ে চট্টলার দলটি।

এই পরাজয়ের পরও একক ভাবে লিগ টেবিলের শীর্ষে অবস্থান করছে বসুন্ধরা কিংস। ১৮ ম্যাচে ৪৯ পয়েন্ট বসুন্ধরা কিংসের। সমান ম্যাচে ৩১ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের পাঁচ নাম্বারে চট্রগ্রাম  আবাহনী।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here