বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগে দিনেড প্রথম ম্যাচে জয় পেয়েছে ঢাকা মোহামেডান এসসি। উত্তর বারিধারা ক্লাবকে ৪-১ গোলের ব্যবধানে পরাজিত করেছে সাদা-কালো শিবিররা।

ইনজুরিতে ইতিমধ্যে দল থেকে ছিটকে গেছেন মোহামেডান অধিনায়ক ও দলের মধ্যমাঠের ত্রাতা জাপানি খেলোয়াড় উরু নাগতা। লিগামেন্টে তাকে অপারেশন করাতে হবে, তাই ইতিমধ্যে জাপান চলে গিয়েছেন তিনি। ফলে নিয়মিত অধিনায়ককে ছাড়া আজ মাঠে নামতে হয় মোহামেডানকে। তবে এতে বিচলিত হয়নি তারা। ম্যাচের শুরু থেকেই নিয়ন্ত্রণ নেয় মতিঝিলের দলটি।

ম্যাচের শুরুতে অবশ্য দুবার গোলের সুযোগ পায় বারিধারার সুমন রেজা। কিন্তু প্রথমবার বাঁধা হয়ে দাড়ায় মোহামেডান গোলকিপার আহসান হাবীব। পরেরবার বলে পাই ছোঁয়াতে পারেননি জাতীয় দলের এই ফরোয়ার্ড।

ম্যাচের ১৯ মিনিটের প্রথম গোল করে মোহামেডান। মাঠের ডান দিক থেকে সোলেমন দিয়াবাতে বল বাড়ালে দারুণভাবে বল নিয়ন্ত্রণ করে শরীরকে ৩৬০ ডিগ্রী ঘুরিয়ে বা পায়ের শটে বারিধারার জালে বল পাঠান হাকিম বাপ্পী। তবে এর পাঁচ মিনিট পরই দলকে সমতায় ফেরান বারিধারার আগে দুবার সুযোগ হাতছাড়া করা বারিধারার অধিনায়ক সুমন রেজা। মোস্তফার থ্রো থেকে ডি বক্সের ভিতরে ফাঁকা জায়গায় বল পান সুমন রেজা। সেখান থেকে কোনাকুনি শটে গোল করেন সুমন রেজা।

ম্যাচের ৩৬ মিনিটে আবারো ম্যাচে লিড নেয় মোহামেডান। ইভানের নেওয়া কর্ণার থেকে হেডে বল জালের ঠিকানায় পৌঁছে দেন ফরোয়ার্ড সলেমান দিয়াবাতে। প্রথমার্ধের শেষ মুহুর্তে ইভানের কর্ণার থেকে হেড নেন সলেমান দিয়াবাতে। এরপর শূন্য ভাসা বলকে দারুণ ভলিতে গোলে পরিণত করেন অনিক হোসেন বিরতির আগেই মোহাডেনকে ৩-১ গোলে এগিয়ে দেন।

বিরতির পর ব্যবধান কমানোর চেষ্টা চালায় বারিধারা। ম্যাচের ৭৩ মিনিটে গোল করার সুযোগও পায় তারা। বারিধারার ডিফেন্ডার ইউসুফ বাম্বাকে ডিবক্সে ফেলো দিলো পেনাল্টির সিদ্ধান্ত দেন রেফারি। কিন্তু সেই সুযোগকেও গোলবারের উপর দিয়ে বল পাঠিয়ে হাতছাড়া করেম ডিফেন্ডার ফজিলভ।

ম্যাচের ৮১ মিনিটে মোহামেডান ফরোয়ার্ড ইয়াসান গোল।করলে বড় জয় নিশ্চিত হয় মোহামেডানের। এতে করে ৪-১ গোলের জয় দিয়ে মাঠ ছাড়ে শন লেনের শিষ্যরা।

এই জয়ের ফলে ১৮ ম্যাচ শেষে ৩২ পয়েন্ট হলো মোহামেডানের। কিন্তু চতুর্থ স্থানেই আছে তারা। অন্যদিকে ১৭ ম্যাচে ১৫ পয়েন্ট নিয়ে নবম স্থানে উত্তর বারিধারা।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here