স্বাধীনতা কাপের প্রতিশোধটা অবশেষে নিয়েই নিলো বসুন্ধরা কিংস। স্বাধীনতা কাপের ফাইনালে হারের প্রতিশোধটা লীগের প্রথম দেখায় নিতে ব্যর্থ হলেও ফিরতি দেখায় লীগের ২১ তম রাউন্ডে হোম ভেন্যু বসুন্ধরা স্পোর্টস কমপ্লেক্সে রবসনের জোড়া গোলে ঢাকা আবাহনীকে ৩-২ গোলে পরাজিত করে নিজেদের প্রতিশোধটা সম্পূর্ণ করলো ইতিমধ্যেই লীগের শিরোপা জয়ী দল বসুন্ধরা কিংস।

ম্যাচের ১৩ মিনিটেই শুরু হয়ে যায় উত্তেজনা। ডান প্রান্ত ধরে আক্রমনে উঠতে থাকা কিংসের মিগেলকে কুনুই দিয়ে ধাক্কা দিয়ে বাধা দেন আবাহনীর মিলাদ। পড়ে যাওয়ার পর মিলাদকে উঠে এসে ধাক্কা দেন মিগেল, তখনই শুরু হয় দুই দলের খেলোয়াড়দের মধ্যে হাতাহাতি। এক পর্যায়ে কিংস ফরোয়ার্ড নুহা মারংকে দুইবার ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেন আবাহনী গোলরক্ষক সোহেল। এই ঘটনা থামার আগেই একটু দূরে সোহেল রানাকে ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেন রাকিব। ঘঠনাবহুল এই ৫-৬ মিনিট শেষে হলুদ কার্ড দেখেন কিংসের মিগেল, আবাহনীর শহিদুল ও রাকিব।

১৯ মিনিটের মাথায় মাঠের ডানপ্রান্ত থেকে ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড মিগেল ফিগুইরার বা-পায়ের ফ্রি কিকে হেড করে বসুন্ধরা কিংসকে ম্যাচের প্রথম লিড এনে দেয় কিংসের গাম্বিয়ান ফরোয়ার্ড নুহা মারাঙ্গ। প্রথমার্ধের ইঞ্জুরি টাইমে আবাহনীকে সমতায় ফেরায় রাকিব হোসেন। ডেরিয়েল্টনের খালেদ শাফি ও রিমন হোসেইনের মাঝখান দিয়ে বাড়ানো থ্রু বলে দৌড়ে এসে বক্সের ভেতরে ঢুকে পড়ে চলন্ত বলে শট করে গোল করে রাকিব হোসেন।

ম্যাচের ৭১ মিনিটে রবসনের গোলে ম্যাচে আবারো এগিয়ে যায় বসুন্ধরা কিংস। মাহবুবুর রহমান সুফিল হয়ে বল পায় মিগেল ফিগুইরা থেকে বল পায় রবসন। সেখান থেকে বল নিয়ে এগিয়ে বক্সের ভেতরে ঢুকে গোলমুখে শট নিয়ে আবাহনীর গোলরক্ষক শহিদুল ইসলাম সোহেলকে পরাস্ত করে দুর্দান্ত এক ফিনিশিং দেয় কিংসের ব্রাজিলিয়ান এই ফরোয়ার্ড।

দ্বিতীয়ার্ধের যোগ করা সময়ে কাউন্টার এটাক থেকে রবসনের গোলে ব্যবধান বাড়িয়ে নেয় বসুন্ধরা কিংস। কাউন্টার এটাকে বসুন্ধরা কিংসের রিমন হোসেইন রান মেইক করে উপরে উঠে এসে হালকা করে বল রিলিজ করে দিলে বলের নিয়ন্ত্রণ নেয় রবসন। আবাহনীর গোলরক্ষক শহিদুল ইসলাম আলম সোহেল বল রুখতে নিজের জায়গা ছেড়ে উঠে আসলে রবসন পায়ের আলতো টোকা দিয়ে বলকে শহিদুল আলম সোহেলের মাথার উপর দিয়ে তুলে দিয়ে বলকে জালে পাঠিয়ে দেয়।

মিনিট দুয়েক পর আবাহনীর ড্যানিয়েল কলিন্ড্রেসের কর্ণার কিক থেকে বসুন্ধরা কিংসের মাশুক মিয়া জনির হাতে বল লাগলে আবাহনীর পেনাল্টির আবেদনে সাড়া দেয় রেফারি জিএম চৌধুরী নয়ন। এতে কিংসের খেলোয়াড়রা অসন্তোষ প্রকাশ করলেও নিজের সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসে না রেফারী। ফলে পেনাল্টি আদায় করে নেয় ঢাকা আবাহনী। পেনাল্টিতে স্পট কিকে আবাহনীর ব্রাজিলিয়ান মিডফিল্ডার রাফায়েল আগোস্তো শট করলে তা ঠেকিয়ে দেয় কিংসের গোলরক্ষক আনিসুর রহমান জিকো। কিন্তু ফিরতি সুযোগে বলকে প্রতিপক্ষের জালে জড়িয়ে দেয় রাফায়েল আগোস্তো। কিন্তু শেষ পর্যন্ত ৩-২ গোলের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে বসুন্ধরা কিংস।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here