গুঞ্জন ছিলো বাংলাদেশী নাগরিকত্ব নিয়ে ঢাকা আবাহনীতে খেলতে দেখা যাবে নাইজেরিয়ান ফরোয়ার্ড সানডে চিজোবাকে। কিন্তু সূত্র মোতাবেক বাংলাদেশের নাগরিকত্ব দিতে আবাহনী কোন কাজই করেনি। বরং তারা ভালো বিদেশী অন্তর্ভুক্ত করতেই মনোযোগী ছিলো। তবে সানডেকে এই মৌসুমেও দেখা যাবে ঢাকার মাঠে। আকাশী নীল জার্সি বদলে তিনি এবার গায়ে জড়াবেন হলুদ-সবুজ জার্সি।

পুরোনো ঢাকার ঐতিহ্যবাহী দল রহমতগঞ্জ মুসলিম ফ্রেন্ডস সোসাইটির গোল করার মূল দায়িত্বে দেখা যাবে সানডেকে। এতে করে নিজেদের চার জন বিদেশীই নিশ্চিত করেছে ক্লাবটি। রহমতগঞ্জে পূর্বে খেলা সিয়োভস আশররভ থাকবে ডিফেন্সের দায়িত্বে। সাথে গত মৌসুমে পুলিশ এফসি তে থাকা লেনসিন তোরেকেও দলে নিয়েছে তারা। নতুনভাবে দলে নেয়া হয়েছে ঘানাইয়ান ফরোয়ার্ড ফিলিপ আদজাকে। সাথে সানডে যুক্ত হওয়ায় আবারো লিগের বড় দলগুলোর জন্য আতঙ্কের নাম হয়ে উঠার পূর্বাভাসই দিলো রহমতগঞ্জ।

৩২ বছর বয়সী এই ফরোয়ার্ড সর্বপ্রথম বাংলাদেশে এসে মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কেসি’র প্রতিনিধিত্ব করেন। এরপর শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাবেও খেলেছেন। তবে দীর্ঘসময় ঢাকা আবাহনীতে খেলে তাদের ঘরের ছেলে হয়ে উঠেন। গত মৌসুমে প্রথমে আবাহনীতে জায়গা না পেলেও ঠিকই মধ্যবর্তী দলবদলে তাকে ফিরিয়ে আনে ক্লাবটি। লিগ শেষের ১১ ম্যাচ খেলে ৯ টি গোলের পাশাপাশি ৫ টি এসিস্ট করেন তিনি।

আবাহনী এবার শক্ত দল গড়েছে। তাই হয়তো পূর্বের এই সেনানীকে দলে ডাকে নি। কিন্তু ঢাকার মাঠের প্রতিটি ঘাসের সাথে যার পরিচয়, সেই সানডে হয়তো ঠিকই গোল করবেন। কিন্তু এবার তা হবে ভিন্ন জার্সিতে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here