গেল দুই বছরে মাঠের খেলায় সাফল্য-ব্যার্থতা নিয়ে নানান আলোচনা-সমালোচনা থাকলেও, মাঠের বাইরের কার্যক্রমে আগের চাইতে অনেকটাই উদ্যমী হয়েছে বাফুফে।

২০২১ সালের ১লা মার্চ বাফুফে ভবনে শুরু হয় জিমনেশিয়াম নির্মাণের কাজ। ফুটবলারদের জন্য যা ছিল বহু আকাঙ্খিত। এরপর মাদারীপুর, নীলফামারী ও ফেনী এই তিন জেলায় তৃণমূল/গ্রাসরুট জোন স্থাপন করেছে, যেখানে ২০০ জন বয়সভিত্তিক ছেলে ও ৬০ জন মেয়ে নিয়মিত অনুশীলন করছে। আগামীতে সারা দেশে এই জোন স্থাপনের পরিকল্পনা বাফুফের। আর এই পরিকল্পনার অংশ হিসেবে এরইমধ্যে ৮ বিভাগে ১৬ জন কোচ নিয়োগ দেয়া হয়েছে। এবারই প্রথমবারের মত দেশের ৫টি স্থানে (দিনাজপুর, খুলনা, সিলেট, বাফুফে আর্টিফিসিয়াল টার্ফ ও বিকেএসপি, সাভার) ১৮ নভেম্বর হতে ২৩ ডিসেম্বর ২০২০ তারিখ পর্যন্ত ৫ দিন ব্যাপী বাফুফে আবাসিক তৃণমূল/গ্রাসরুট কোচিং কোর্স আয়োজন করা হয়েছে। এছাড়া বাংলাদেশে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা একাডেমীগুলোকে একটি নির্দিষ্ট কাঠামোতে আনার জন্য বাফুফে কর্তৃক ‘একাডেমী এ্যাক্রিডিটেশন স্কীম’ এর কার্যক্রম হাতে নিয়েছে। এরই পরিপ্রেক্ষিতে ২৬০টি একাডেমী বাফুফে বরাবর আবেদন করে। যার মধ্যে ৭৭টি একডেমী ‘ওয়ান স্টার’ এবং ১টি একাডেমী ‘টু স্টার’ এর যোগ্যতা অর্জন করে।

এবার নজর দেয়া যাক মাঠের ফুটবলে। করোনার ধাক্কা কাটিয়ে নেপালকে আমন্ত্রণ জানিয়ে মুজিববর্ষ ফিফা আন্তর্জাতিক ফুটবল সিরিজ আয়োজন করে বাফুফে। ২০২০ সালের নভেম্বরে আয়োজিত সে সিরিজে নেপালকে হারিয়ে (২-০ ও ০-০) শিরোপা জিতে বাংলাদেশ। এরপরের মাসেই করোনা পরিস্থিতির মধ্যেও কাতারে বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের ম্যাচে স্বাগতিকদের বিপক্ষে মাঠে নামে বাংলাদেশ। যদিও বাংলাদেশ ম্যাচ হারে ৫-০ গোলের বড় ব্যবধানে। গত ২০ ফেব্রুয়ারী হতে ২৫ মার্চ ২০২০ তারিখ পর্যন্ত ট্রিকোটেক্স মহিলা ফুটবল লীগ ২০১৯-২০ এর প্রথম পর্বের খেলা অনুষ্ঠিত হয়ে কোভিড-১৯ পরিস্থিতিতে অবশিষ্ট খেলাসমূহ স্থগিত হয়। অন্যদিকে বাফুফে জাতীয় স্কুল ফুটবল চ্যাম্পিয়নশীপ ২০২০ এর খেলা গত ১৭ জানুয়ারী ২০২০ তারিখ শুরু হয়ে প্রাথমিক পর্ব শেষে কোভিড-১৯ পরিস্থিতিতে স্থগিত করা হয়। পরবর্তীতে বাফুফে নির্বাচন ২০২০ সম্পন্ন করার পর কোভিড-১৯ পরিস্থিতির মধ্যেও গত ২০ নভেম্বর হতে ১৩ ডিসেম্বর ২০২০ তারিখ পর্যন্ত ‘টিকোটেক্স মহিলা ফুটবল লীগ ২০১৯-২০ এর চূড়ান্ত পর্বের খেলা ঢাকার কমলাপুরস্থ বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ সিপাহী মোহাম্মদ মোস্তফা কামাল স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হয় এবং বাফুফে জাতীয় স্কুল ফুটবল চ্যাম্পিয়নশীপ ২০২০ এর অবশিষ্ট খেলা গত ১৮ ডিসেম্বর হতে ২৬ ডিসেম্বর ২০২০ তারিখ পর্যন্ত পল্টন ময়দানের আউটার স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হয়।

এছাড়া বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগ, বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ লীগ, জাতীয় স্কুল ফুটবল, বঙ্গবন্ধু জাতীয় ফুটবল চ্যাম্পিয়নশীপ, পাইওনিয়ার ফুটবল লীগসমূহের খেলা সফলভাবে আয়োজন করে বাফুফে। ২০২১ সালে সাফের দুই বয়সভিত্তিক টুর্নামেন্ট, অনূর্ধ্ব-১৯ নারী চ্যাম্পিয়নশীপ এবং অনূর্ধ্ব-১৮ নারী চ্যাম্পিয়নশীপে যথাক্রমে চ্যাম্পিয়ন ও রানার্স আপ হয় বাংলাদেশ। ছেলেদের বয়সভিত্তিক দুই টুর্নামেন্ট, সাফ অনূর্ধ্ব-২০ ও অনূর্ধ্ব-১৭ চ্যাম্পিয়নশীপে যথাক্রমে রানার্স আপ ও সেমি ফাইনাল থেকে বিদায় নেয় লাল সবুজের প্রতিনিধিরা। এছাড়া বাহরাইনে অনুষ্ঠিত এএফসি অনূর্ধ্ব-২০ এশিয়ান কাপ বাছাইয়ে ৪ ম্যাচে ২ জয় এবং ১টি করে ড্র এবং হারে ৭ পয়েন্ট নিয়ে নিজেদের গ্রুপে তৃতীয় হয় বাংলাদেশ। তবে এই দুই বছরে সবচেয়ে হতাশ করেছে বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দল। এই দুই বছরে বিশ্বকাপ বাছাই, এশিয়ান কাপ বাছাই, সাফ চ্যাম্পিয়নশিপ, শ্রীলংকার মাহিন্দা রাজাপাকসে কাপসহ ফিফা উইন্ডোতে খেলা আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচেও আশানুরূপ সাফল্য পায়নি জাতীয় দল।

তবে বাফুফের এই দুই বছরের সাফল্যর তালিকাকে সমৃদ্ধ করেছে বাংলাদেশ জাতীয় নারী ফুটবল দল। গেল কদিন আগেই নেপাল থেকে সাফের শিরোপা নিয়ে দেশে ফিরেছে সাবিনা-কৃষ্ণারা। এর আগে ঘরের মাঠে মালয়েশিয়ার মত দলকে আন্তর্জাতিক প্রীতি ম্যাচে ৬-০ গোলে উড়িয়ে দেয় গোলাম রাব্বানী ছোটনের শিষ্যরা। তাইতো মাঠের খেলায় গেল দুই বছরে বাফুফের সম্মান করার কৃতিত্ব শুধুমাত্র মেয়েদেরই প্রাপ্য। আগামী ২৯ অক্টোবর ২০২২ তারিখে বাফুফের বার্ষিক সাধারণ সভা ২০২২ অনুষ্ঠিত হবে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here