অবনমন এড়ানোর লড়াই ভালোভাবে চালিয়ে যাচ্ছে মুক্তিযোদ্ধা সংসদ। রহমতগঞ্জের কাছে ৭-১ গোলে পরাজিত হওয়া পর লড়াইয়ে ফিরেছে মুক্তিযোদ্ধা। যার ফলশ্রুতিতে গত ম্যাচে শেখ রাসেলের সাথে ড্রয়ের পর এবার তুলনামূলক শক্ত প্রতিপক্ষ মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাবকে ধরাশায়ী করেছে মুক্তিযোদ্ধা সংসদ। লীগের ২০ তম রাউন্ডে নিজেদের মাঠ শেখ ফজলুল হক মণি স্টেডিয়ামে মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাবকে ২-১ গোলে পরাজিত করে মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ক্রীড়া চক্র।

ম্যাচের ২৬ মিনিটে ওবায়দুর রহমান নবাবের থ্রু পাস থেকে বক্সের ভেতরে ঢুকে মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাবের উত্তর মেসিডোনিয়ান ডিফেন্ডার ইয়াসমিন মেসিনোভিককে পরাস্ত করে গোল করে মুক্তিযোদ্ধা সংসদের বুরুন্ডিয়ান ফরোয়ার্ড সোদি আবদুল্লাহ। ম্যাচের ৬৯ মিনিটে লিড দ্বিগুণ করে সোদি আবদুল্লাহ। সতীর্থের থেকে পাসে বল পেয়ে বক্সের ভেতরে ঢুকে পড়ে প্রতিপক্ষের খেলোয়াড় রাজীব হোসেন ও গোলরক্ষক মোহাম্মদ হাবিবকে পাশ কাটিয়ে গোল আদায় করে এই বুরুন্ডিয়ান ফরোয়ার্ড। সেখানে সোদিকে বাধা দেওয়ার জন্যে মোহামেডানের রক্ষণভাগের খেলোয়াড় ইয়াসমিন ও ইমন থাকলেও গোল হওয়া রুখতে পারে নি।

ম্যাচের ৯০ মিনিটে মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাবের হয়ে এক গোল শোধ করে নাইজেরিয়ান ফরোয়ার্ড ওবি মোনেকে। তবে শেষ পর্যন্ত ২-১ গোলে জয় পায় মুক্তিযোদ্ধা সংসদ। এই জয়ের ফলে ২০ ম্যাচে ১৫ পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট টেবিলের ১০ স্থানে থেকে অবনমনের লড়াই লড়ে যাচ্ছে মুক্তিযোদ্ধা সংসদ। অন্যদিকে সমান ম্যাচ খেলে ২৯ পয়েন্ট নিয়ে পয়েন্ট তালিকার পঞ্চম স্থানে আছে মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব।

দিনের অন্য দুই খেলা বড় জয় পেয়েছে শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্র ও রহমতগঞ্জ মুসলিম ফ্রেন্ডস সোসাইটি। বসুন্ধরা স্পোর্টস কমপ্লেক্সে বাংলাদেশ পুলিশ ফুটবল ক্লাবকে ৪-১ গোলে পরাজিত করেছে শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্র। ম্যাচের সকল গোলই করেছে দলের বিদেশি ফুটবলাররা। শেখ রাসেল ক্রীড়া চক্রের হয়ে দুইটা গোল করে নাইজেরিয়ান ফরোয়ার্ড ইসমাইল আকিনাদে এবং ঘানাইয়ান ফরোয়ার্ড রিচার্ড গাদজে ও আইভোরিয়ান মিডফিল্ডার চার্লস দিদিয়ার একটি করে গোল করে। এছাড়া পুলিশ ফুটবল ক্লাবের হয়ে একমাত্র গোলটি করে আফগানি ফরোয়ার্ড আমিরুদ্দিন শারিফী।

আরেক ম্যাচে রাজশাহীর মুক্তিযুদ্ধ স্মৃতি স্টেডিয়ামে নাইজেরিয়ান ফরোয়ার্ড সানডে চিজোবার হ্যাট্রিকের ফলে স্বাধীনতা ক্রীড়া সংঘকে ৫-১ গোলের ব্যবধানে পরাজিত করেছে রহমতগঞ্জ মুসলিম ফ্রেন্ডস সোসাইটি। রহমতগঞ্জ মুসলিম ফ্রেন্ডস সোসাইটি হয়ে সানডে চিজোবার হ্যাট্রিক ছাড়াও গোল করে ঘানাইয়ান ফরোয়ার্ড ফিলিপ আদজা ও সানওয়ার হোসেন। অন্যদিকে স্বাধীনতা ক্রীড়া চক্রের হয়ে গোল করেছে সার্বিয়ান ডিফেন্ডার ইভান মেরিক।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here