দুই ম্যাচ হাতে রেখে বাংলাদেশের ঘরোয়া ফুটবলের সবচেয়ে বড় আসর ‘বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লীগ’-এর টিকেট কেটে ফেললো ফর্টিস ফুটবল ক্লাব। তিন ম্যাচে মাত্র এক পয়েন্টই দরকার ছিল ফর্টিস এফসি’র। কিন্তু অপেক্ষার প্রহর গুনতে নারাজ ছিলেন ফর্টিসের খেলোয়াড়েরা। তাই তো গতকালকের ম্যাচ কাওরান বাজার প্রগতি সংঘ ৫-০ গোলে পরাজিত করে নিশ্চিত তিন পয়েন্ট নিয়ে নিজেদের লক্ষ্য পূরণ করে।

চ্যাম্পিয়নশীপ লীগের গত আসরে মাত্র দুই পয়েন্টের জন্যে প্রিমিয়ার লীগে জায়গা করে নিতে পারেনি ফর্টিস। এবার তাই দুই ম্যাচ আগেই বিপিএলে নাম লিখিয়েছে তারা। ম্যাচ শেষে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেছেন ফর্টিস এফসির প্রেসিডেন্ট শাহীন হাসান। তিনি বলেন, ‘বিপিএল খেলার যে আশা ছিলো, সে আশাটা পূরণ হয়েছে। এখন ২ ম্যাচ থাকতেই আমাদের প্রমোশন হচ্ছে। তাই টিমের পক্ষ থেকে আমরা সবাই অনেক খুশি।’

তিনি আরো বলেন, ‘ম্যাচে নামার আগে আমরা সবাই কথা দিয়ে নেমেছিলাম যে চ্যাম্পিয়নসশীপ লীগে আরো দুই ম্যাচ আছে প্রিমিয়ার লীগ নিশ্চিতের জন্যে। কিন্তু গতবার যেটা পারি নি সেটা যেনো দুই ম্যাচ হাতে রেখে আজকেই নিশ্চিত করতে পারি।’

টিমের সাথের মানিয়ে নিতে সমস্যা হয় নি বলে জানান ফর্টিস কোচ জাহিদুর রহমান। টিমের প্রেসিডেন্ট, কোচিং স্টাফ ও খেলোয়াড়দের সুনাম করেছেন তিনি। তিনি বলেন, ‘টিমের সাথে নিজেকে মানিয়ে নিতে আমাকে কোনো সমস্যার মুখে পড়তে হয় নি। কোচিং স্টাফরা খুবই ভালো ছিলো, টিমের প্রেসিডেন্ট সবসময়ই সাহায্য করেছে। খেলোয়াড়েরাও খুবই ভালো ছিলো। এর ফলে কোচিং করানোটা আমার কাছে সহজ হয়ে যায়। ’

জয়ের প্রসঙ্গে দলের ফরোয়ার্ড জাকির হোসেন জিকো বলেন, ‘গতবারও অনেক ভালোভাবে শুরু করেছিলাম। কিন্তু শেষে এসে মাত্র দুই পয়েন্টের ব্যবধানে প্রমোশন পাই নি। তাই এবারের শুরুতেই আমাদের ক্লাব প্রেসিডেন্ট আমাদের বলে দিয়েছিলেন যে করে হোক চ্যাম্পিয়নশীপের ট্রফি লাগবে, চ্যাম্পিয়নশীপের ট্রফির জন্যে আমি দল গড়েছি।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here