বাংলাদেশের পেশাদার ফুটবলের দ্বিতীয় স্তর বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ লিগ। এই লিগের পারফরম্যান্সই একজন নতুন ফুটবলারকে এনে দেয় বাংলাদেশ ফুটবলের সর্বোচ্চ স্তর অর্থাৎ বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের কোনো ক্লাবে খেলার সুযোগ। তাইতো উদীয়মান ফুটবলারদের কাছে বেশ গুরুত্বপূর্ন বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ লিগ। এরই মধ্যে এবারের বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ লিগের প্রথম লেগ শেষ হয়েছে।

এবারের চ্যাম্পিয়নশিপ লিগের শুরু থেকেই একটি নাম সবার মুখে মুখে ঘুরছে। আর সেটা হলো বাফুফে এলিট একাডেমির ফুটবলার মিরাজুল ইসলাম। বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ লিগে আলো ছড়ানো এই তরুণ ফরোয়ার্ডকে বাকি মৌসুমের জন্য দলভুক্ত করেছে মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব।

এখন পর্যন্ত বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়নশিপ লিগের প্রথম লেগের ১১ ম্যাচে ৬ গোল করে শীর্ষ গোলদাতার তালিকায় সবার উপরে মিরাজুল। প্রিমিয়ার লিগের দ্বিতীয় পর্বের জন্য বাফুফে এলিট একাডেমি থেকে ধারে মিরাজুলকে দলে নিচ্ছে সাদা-কালোরা। দ্বিতীয় লেগের জন্য তাকে দলে পেতে মোহামেডানকে গুনতে হচ্ছে ১০ লাখ টাকা। যার ৪ লাখ টাকা পাবেন মিরাজুল। বাকি ছয় লাখ পাবে বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন। মিরাজুলকে দলে নিয়ে নিজেদের সোনালী অতীত ফেরানোর ব্যাপারে বেশ আশাবাদী মোহামেডানের ম্যানেজার ইমতিয়াজ আহমেদ নকীব। পাশাপাশি বাফুফের টেকনিক্যাল ডিরেক্টর পল স্মলি মিরাজুলের এই উত্থানকে নিজেদের সাফল্য হিসেবে দেখছেন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here