আগামীকাল থেকে মাঠে গড়াচ্ছে বাফুফে জাতীয় স্কুল ফুটবল চ্যাম্পিয়ন্সশীপে চূড়ান্ত পর্ব। উক্ত টুর্ণামেন্টকে উপলক্ষ্য করে আজ মতিঝিলস্থ বাফুফে ভবনে একটি সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক মোঃ আবু নাইম সোহাগ, বাফুফে স্কুল ফুটবল কমিটির চেয়ারম্যান বিজন বড়ুয়া এবং অন্যান্য ব্যক্তিবর্গ।

গত ১২ ই মে থেকে ৫১ টি দল নিয়ে শুরু হয়েছিলো টুর্ণামেন্টের প্রাথমিক পর্যায়ের খেলা। টুর্ণামেন্টের প্রাথমিক পর্যায় শেষ হয়েছিলো গত ২৬ শে মে। আগামীকাল থেকে আটটি দল দুই গ্রুপে ভাগ হয়ে চূড়ান্ত পর্বে অংশ নিবে। উক্ত টুর্ণামেন্টে চ্যাম্পিয়ন দল ১ লক্ষ ও রানার্সআপ দল ৫০ হাজার টাকা পাবে। আগামীকাল চূড়ান্ত পর্বের প্রথম ম্যাচে আউটার স্টেডিয়ামে মুখোমুখি হবে যশোরের বেনাপোল মাধ্যমিক বিদ্যালয় এবং হবিগঞ্জ আলী ইন্দ্রিস উচ্চ বিদ্যালয়। দুইদলের অধিনায়করাও এই সভায় উপস্থিত ছিলেন।

প্রথম ম্যাচে জয় পেতে বদ্ধপরিকর হবিগঞ্জ আলী ইন্দ্রিস উচ্চ বিদ্যালয়। এই নিয়ে দলীয় অধিনায়ক ইমরান মিয়া বলেন, ‘বাফুফে স্কুল ফুটবল টুর্ণামেন্টে অংশগ্রহণ করতে পেরে আমরা খুব আনন্দিত। ম্যাচে আমার দলের সকলেই ভালো খেলার চেষ্টা করবে এবং ইনশাল্লাহ আমরা প্রথম ম্যাচে জয় নিয়ে ফিরবো।’

অন্যদিকে দলকে নিয়ে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার আশা রাখছেন বেনাপোল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের অধিনায়ক সাইদুর রহমান রাতুন। তিনি বলেন, ‘আমরা এখন বিভাগের হয়ে প্রতিনিধিত্ব করতেছি এবং ভবিষ্যতে বয়স্কভিত্তিক যে টুর্ণামেন্টগুলো আছে সেগুলো খেলে বাংলাদেশকে প্রতিনিধিত্ব করতে চাই। সবাই আমাদের জন্য দোয়া করবেন, আমরা যেনো সারা বাংলাদেশ চ্যাম্পিয়ন হতে পারি।’

টুর্ণামেন্ট থেকে প্রতিভাবান ফুটবলার বাছাই করে তাদের নিয়ে কাজ করার কথা বলেছেন বাফুফে স্কুল ফুটবল কমিটির চেয়ারম্যান বিজন বড়ুয়া। তিনি বলেন, ‘আমরা ইতিমধ্যেই ৩৫-৪০ জন খেলোয়াড় বাছাই করেছি। চূড়ান্ত পর্বেও আমরা যতজন ভালো খেলোয়াড় পাবো,তাদেরকেও আমরা নিবো বলে আশা রাখছি। এদের জন্যে আমরা একটা ট্রেনিংয়ের ব্যবস্থা করবো। ট্রেনিংয়ের ব্যবস্থা করে এদেরকে আমরা আমাদের যে একাডেমি আছে, সেখানে যোগ্যতা অনুযায়ী তাদেরকে চান্স করিয়ে দিবো।’

স্কুল ফুটবল টুর্ণামেন্ট ছাড়াও বয়সভিত্তিক আরো অনেক টুর্ণামেন্ট অনুষ্ঠিত হচ্ছে বলে জানিয়েছেন বাফুফের সাধারণ সম্পাদক মোঃ আবু নাইম সোহাগ। এই প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘ ২০১০ এবং ২০১১ সাল থেকে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অধীনে বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ প্রাথমিক বিদ্যালয় ফুটবল টুর্ণামেন্ট, বঙ্গমাতা ফজিলাতুন্নেছা মুজিব প্রাথমিক বিদ্যালয় ফুটবল টুর্ণামেন্ট অনুষ্ঠিত হচ্ছে। এর পাশাপাশি পরবর্তীতে ৪-৫ বছর পর আমাদের যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রণালয়ের অধীনে অ-১৭ ছেলে ও মেয়েদের জন্য যথাক্রমে বঙ্গবন্ধু অ-১৭ বয়েজ ও ববঙ্গমাতা অ-১৭ গার্লস এইসকল টুর্ণামেন্টগুলো হচ্ছে।’

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here