নিজের সাবেক দল সাইফ স্পোর্টিং ক্লাবকে অভিযোগের কাঠগড়ায় দাঁড় করালেন বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দলের অধিনায়ক জামাল ভূঁইয়া। বেতন সংক্রান্ত কারণে সাইফ স্পোর্টিং ক্লাব নিয়ে বাফুফেতে অভিযোগ জানান তিনি।

গত ২ রা নভেম্বর বকেয়া বেতন পরিশোধের জন্যে অনুরোধ জানিয়ে বাংলাদেশের ফুটবল ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক মোঃ আবু নাইম সোহাগের কাছে চিঠি পাঠান জামাল। ২০২১-২২ ফুটবল মৌসুমে তার তিন মাসের বেতন পরিশোধ করা হয় নি বলে জানান তিনি। উল্লেখিত মাসগুলো হলো ফেব্রুয়ারী, মার্চ এবং জুন। এই তিন মাসে সাইফের কাছে জামালের পাওনার পরিমাণ দাঁড়ায় প্রায় সাড়ে ১৬ লক্ষ টাকা।

চিঠিতে তিনি উল্লেখ করেছিলেন গত ২ রা নভেম্বর তিনি সাইফের সভাপতি তরফদার রুহুল আমিন ও সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান রনি এবং ম্যানেজার শাহেদুল আলম শাহেদের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করেছিলেন। কিন্তু তাদের কাছ থেকে তিনি কোনোরূপ সাড়া পাননি। এইজন্য বাফুফের প্রতি আস্থা রেখে সুষ্ঠু বিচারের দাবি জানান। আজ এক ভিডিও বার্তায় তিনি বলেন,‘চুক্তিতে থাকা এমন অনেক খেলোয়াড় আছে যারা এক মিনিটও না খেলে সাইফের কাছ থেকে পূর্ণ পারিশ্রমিক পেয়েছে। কিন্তু দুর্ভাগ্যবশত আমার পারিশ্রমিক পরিশোধ করা হচ্ছে না। গত তিন মাসে তাঁরা অন্য খেলাতে টাকা বিনিয়োগ করেছে কিন্তু আমার পাওনা পরিশোধে তাদের ইচ্ছার অভাব দেখা যাচ্ছে।’

প্রিমিয়ার লীগে নিজের ক্যারিয়ার শুরু থেকে সাইফের হয়ে খেলেছেন জামাল ভূঁইয়া। সাইফের জার্সি জড়িয়েছেন টানা চার মৌসুমে। গত মৌসুম শেষের পরপরই সাইফ ঘোষণা দিয়েছিলো তারা আর প্রিমিয়ার লীগের সাথে সংযুক্ত থাকছে না। তাই সাইফের হলুদ জার্সি ছেড়ে দিয়ে শেখ রাসেলের নীল জার্সিতে নিজের নাম লিখিয়েছিলেন বাংলাদেশী অধিনায়ক।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here